Blog in Bangla

একটি সুন্দর প্রজেক্ট বা প্রকল্প বানানোর কৌশল

স্কুল কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য আমাদেরকে কখনও না কখনও প্রজেক্ট বা প্রকল্প বানাতে হয়। আমি এখানে আলোচনা করব কিভাবে একটি সুন্দর প্রজেক্ট বা প্রকল্প বানানো যায়।

একটি সুন্দর প্রজেক্ট বা প্রকল্প বানানোর কৌশল 

একটি সুন্দর প্রজেক্ট বা প্রকল্প বানানোর জন্য সবার আগে প্রয়োজন পড়ে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা করা। সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনার মাধ্যমে সবার প্রথমে একটা ইউনিক টপিক নির্বাচন করতে হবে, যদি টপিক স্কুল কলেজ বা ইউনিভার্সিটি না দিয়ে থাকে ।
স্কুল কলেজ বা ইউনিভার্সিটি যদি আমাদেরকে একটি নির্দিষ্ট বিষয় নির্বাচন করে না দিয়ে থাকে তাহলে আমাদেরকে একটি সুন্দর বিষয় নির্বাচন সবার প্রথমে করতে হয়।
  • বিষয় নির্বাচন করার পর বিষয়টিকে আমি কিরকম ভাবে উপস্থাপন করব সেটা একটা নোটবুকে আগে লিখে নিতে হয়। তাহলে প্রজেক্ট বা প্রকল্প বানাবার সময় সমস্যা তৈরি হয় না। 
  • আমি যে বিষয়ের উপর প্রজেক্ট প্রকল্প বানাতে চলেছি সেই বিষয় সম্পর্কে সম্যক ধারণা দিতে হয়।
  • কেন আমি এই বিষয় নির্বাচন করলাম বা এই বিষয়ের বর্তমান প্রাসঙ্গিকতা কী সেটাও লিখতে হয়।
  • আলোচনা প্রসঙ্গে আমার নির্বাচিত বিষয়ের সঙ্গে যদি রিলেটেড কোন বিষয় এসে থাকে সেই বিষয় সম্পর্কেও সম্যক আলোচনা করলে বিষয়টা আরো ভালো দেখায়।
  • নির্বাচিত বিষয়কে খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে হয়। এখানেই প্রয়োজন পড়ে ছবির আর সুন্দর হাতের লেখার।
  • বর্তমান প্রযুক্তির যুগে বিভিন্ন মোবাইল এপ্লিকেশন থেকে বিষয় নির্ভর ছবি বানিয়ে নেওয়াটা আজকের দিনে বিরাট কিছু ব্যাপার না। পরে সেই ছবি প্রিন্ট করিয়ে নিলেই হচ্ছে।
  • প্রজেক্ট বা প্রকল্প লেখার সময় হাতের লেখাটার গুরুত্ব অনেক বেশি। হাতের লেখাটির উপরেই নির্ভর করে প্রজেক্ট বা প্রকল্প সৌন্দর্য।

কিভাবে প্রজেক্ট বা প্রকল্পকে সুন্দর করব 


প্রজেক্ট বা প্রকল্প কে সুন্দর করার জন্য সুন্দর হাতের লেখা এবং সুন্দর ছবির প্রয়োজন পড়বে। 
হাতের লেখা সুন্দর করার সবচেয়ে উত্তম কৌশল হচ্ছে সমস্ত বর্ণ থেকে আ-কার ই-কার ঈ-কার এ-কার ও-কার…. এগুলোকে তুলনামূলকভাবে বড় করে লেখা।
সুন্দর ছবি বানানোর জন্য যেকোনো মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা যেতে পারে আমি উদাহরণস্বরূপ একটি অ্যাপ্লিকেশনের নাম জানিয়ে রাখলাম, Canva
ধরা যাক আমার প্রকল্প বা প্রজেক্ট এর বিষয় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটগল্প পোস্টমাস্টার এর রতন চরিত্র
আমি সবার প্রথমে কেন এই বিষয়টি নির্বাচন করেছি এবং এই বিষয়টির গুরুত্ব কোথায় তা সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে বলব। এরপর… 
  1. আমি ছোটগল্প সম্পর্কে বলবো এবং অন্যান্য ছোটগল্পের সঙ্গে রবীন্দ্র ছোটগল্পের তুলনামূলক আলোচনা করব।
  2. এরপর রবীন্দ্র ছোটগল্পের সঙ্গে পোস্টমাস্টার গল্পটির তুলনামূলক  আলোচনা করব।
  3. আমি কেন রতন চরিত্রটিকে নির্বাচন করেছি এবং রতন চরিত্রটির বাংলা সাহিত্যে অবদান কতখানি সেটা ব্যাখ্যা করতে শুরু করব।
  4. রতন চরিত্র সম্পর্কে আলোচনা করার সময় রতন চরিত্রটিকে টুকরো টুকরো ভাগে বিভক্ত করে আলোচনা করব। কারণ এই চরিত্রের ভেতর দিয়ে রবীন্দ্রনাথ সমাজের অনেক জিনিসকে তুলে ধরেছেন। যেমন সেই সময়ের শিক্ষাব্যবস্থা সমাজ সংস্কৃতি পরিবেশ-পরিস্থিতি সবকিছুই ফুটে উঠেছে রতন চরিত্রের মাধ্যমে।
একটি সুন্দর প্রকল্প বা প্রজেক্ট বানানোর জন্য উপরের বিষয়গুলি যথেষ্ট। কিন্তু সব প্রোজেক্টের জন্য একই পদ্ধতি প্রয়োগ করলে চলবে না। প্রজেক্ট এর বিষয় প্রজেক্টটি কেমন হবে তা নির্ধারণ করে দেবে।
সবসময় মাথায় রাখতে হবে যে প্রজেক্ট বানাচ্ছে তার ইউনিট কল্পনা তার প্রজেক্টকে সবার থেকে আলাদা এবং সুন্দর করে তোলে।
তাই কোনও প্রজেক্ট বা প্রকল্প বানানোর সময় নিজের চিন্তাশক্তির প্রয়োগ করাটা সবার আগে দরকার। 
Exit mobile version