ভাল আর্টিকেল লেখার ১০টি পদ্ধতি

১০ টি উপায় কিভাবে ভাল আর্টিকেল লিখতে হয়, যাতে গুগল সার্চে আসে

ভাল আর্টিকেল লেখার কৌশল:- SEO Conten- আপনি যদি ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানিয়েছেন তাহলে SEO Content কিভাবে লেখে না জানা থাকলে খুব সমস্যা হবে। দেখুন কিভাবে SEO Content লিখতে হয়।

 
 
আজকের পোস্ট SEO Content

 
SEO content


Top 10 Bengali tips for best SEO content 2020

1. লেখার আগে চিন্তা করুন

আপনি যে বিষয়ের উপর লিখছেন তা ভালকরে সাজিয়ে গুছিয়ে নিন। কোন কোন টপিককে আপনার প্রধান টপিকের সঙ্গে রাখবেন সেগুলো আগাম নোটস করে রাখুন। ছোট ছোট টপিকগুলোকে এমম ভাবে সাজান যাতে প্রধান টপিক আরও বেশি গুরুত্ব পায়। যে বিষয়ের উপর লিখছেন সেই বিষয়ে আপনার যথেষ্ট জ্ঞান থাকতেই হবে। ভুল তথ্য মোটেও দেবেন না।

2. কোন শব্দের উপর কাজ করবেন তা জানুন আগে 

SEO content লেখার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ  কাজ হল keyword planner ব্যবহার করা। যদি ফ্রি keyword planner ব্যবহার করতে চান তাহলে Google keyword planner ব্যবহার করুন। কোন keyword কত সার্চ হচ্চে এবং তার মূল্য কত (CPC) সেটা আগে জানতে হবে। Low competition keywords ব্যবহার করুন তাতে সাফল্য দ্রুত আসবে। CPC অবশ্যই খেয়াল রাখবেন। বেশি cpc অথচ Low competition হলে তো সোনায় সোহাগা।

  

3. প্রপার Heading এবং subheadings ব্যবহার করতে হবে

Heading and subheading যথাযথ ভাবে ব্যবহার করতে হবে প্রতিটি আর্টিকেলের ভেতর। Heading and subheading গুগলকে আর্টিকেল সম্পর্কে উন্নত ধারণা দেয়। দ্রুত Rank করতে সাহায্য করে। Heading and subheading এর ভেতর আপনার main keyword ব্যবহার করুন। যাতে গুগল সহজেই বুঝতে পারে কোন keyword আপনি search এ আনতে চাইছেন।

4. আগের পোস্টের উল্লেখ

আপনার প্রধান পোস্ট পড়ার আগে পঠককে আপনার আগের গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট সম্পর্কে আবগত করুন। এতে ভিউ যেমন বাড়বে তেমন প্রতিটি পোস্টের গুরুত্ব বাড়বে।  

5. নিজের অন্য আর্টিকেল এর সঙ্গে লিংক করা 

Internal linking হচ্ছে SEO এর জাদুগর। Internal linking ম্যাজিকের মতো কাজ করে। আপনার প্রতিটি রিলেটেড পোস্টকে একে অপরের সঙ্গে যুক্ত করুন। যেমন ধরুন মাছ ধরা নিয়ে আপনি পোস্ট লিখছেন এখন তাহলে মাছের খাবার, চার, বড়শি, যা যা রিলেটেড পোস্ট আরও আছে প্রতিটিকে লিংক করান। এতে আপনার প্রতিটি পোস্ট দ্রুত Rank করবে। 

6. একই টপিকের উপর লেখা অন্য ব্লগের আর্টিকেলের সঙ্গে লিংক করা  

External linking অনেকেই করতে চান না। এটা মারাত্মক ভুল। অনেকেই ভাবেন অন্যের ওয়েবসাইটের লিংক দিয়ে আমি কেন আমার ভিউয়ারকে বাইরে পাঠাব! কিন্তু external linking গুগলের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। External linking আপনার পোস্টের সম্মান ১০০% বাড়ায়। আপনি অন্যের পোস্ট লিংক করছেন মানে আপনি নিজের কাজের প্রতি/পাঠকের প্রতি যত্নশীল এবং দায়িত্ববান। External linking প্রমাণ করে যে আপনি নিজের পোস্টকে না পাঠকের চাহিদাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। এটাই গুগলের প্রধান দাবী। এতে আপনার পোস্টের Rank শুধু বাড়বে তাই না আপনার পোস্টের ভেলুও বাড়বে বহুগুণ ।

7. নিজের তোলা বা তৈরিকরা ছবি ব্যবহার করুন 

এই ভুল বেশিরভাগ মানুষ করেন। ইন্টারনেট থেকে ছবি ডাউনলোড করে নিজের পোস্টে ব্যবহার করেন। কিন্তু এতে কপিরাইট প্রবলেম তৈরি হয় দিন দিন। যাতে পুরো ওয়েবসাইটের Rank খারাপ হয়। Canva বা যেকোনও যায়গা থেকে নিজের পোস্টের ছবি নিজে বানান। এতে আপনার পোস্ট শুধু নয় ওয়েবসাইটের ভ্যালুও বহু বাড়বে।   

 

8. বেশি শব্দের আর্টিকেল লিখতে হবে 

প্রতিটি পোস্ট যেন মিনিমাম ৩০০ শব্দের বেশি হয়। চেষ্টা করবেন ৮০০+ শব্দের আর্টিকেল লিখতে। যে বিষয়ে পোস্ট লিখছেন সেই বিষয় গুগলে লিখে প্রথম ১০টা পোস্ট দেখুন। ওই ১০ পোস্টের যেটাতে সবচেয়ে বেশি শব্দ ব্যবহার হয়েছে সেটার চেয়ে বেশি শব্দের পোস্ট লেখার চেষ্টা করবেন। পাঠক ডেকে আনা শুধু নয় পাঠক ধরে রাখাও আপনার দায়িত্ব।  যত বেশি সময় পাঠক আপনার পোস্ট পড়বে তত বেশি হাই হবে Ranking . বেশি সময় পাঠকের থাকা গুগলকে পোস্টের গুরুত্ব সম্পর্কে জানান দেয়। পাঠকের চাহিদা যদি না মেটে তাহলে পোস্টের Rank ক্রমাগত খারাপ হতেই থাকে।  

9. নিয়মিত  আর্টিকেল পোস্ট করতে হবে

চেষ্টা করবেন নিয়মিত পোস্ট লিখতে। রেগুলেটরি গুগলের কাছে পজেটিভ বার্তা পৌঁছায়। আপনার যে বিষয়ের সাইট সেই বিষয়ের বাইরের পোস্ট লিখবেন না। খিচুড়ি ওয়েবসাইট গুগলে rank করে না। 

10. পোস্ট সেয়ার করাও যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ   

পোস্ট পাব্লিশ করার পর ম্যাক্সিমাম সেয়ার করার চেষ্টা করুন। ফেসবুকটুইটারগুগল+রিডিটটেলিগ্রামটাম্বলারহোয়াটসঅ্যাপ । পোস্ট পাব্লিশ হওয়ার পর ৩০ মিনিটের ভেতর যত খুশি সেয়ার করুন। আর অবশ্যই গুগল ওয়েব মাস্টারটুলবিংগ ওয়েব মাস্টারটুলে পোস্ট আপডেট করবেন।  এছাড়া pingomatic এ পোস্ট ping করবেন। 

পরিনতি

এই দশটা নিয়ম মেনে দেখুন পোস্ট ঝড়ের মতো rank করবে। মন দিয়ে কাজ করে যান দেখবেন SEO সম্পর্কে আপনার ধারণা আরও গভীর হবে।     

2 thoughts on “ভাল আর্টিকেল লেখার ১০টি পদ্ধতি”

  1. খুব বেশি সেয়ার করবেন না। ফেসবুকে একটা লেখা ১০ বারের বেশি না। বিভিন্ন সোশাল মিডিয়ায় সেয়ার করুন। একটায় বারবার করবেন না।

    Reply

Leave a Comment